সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

বড় ছন্দপতন! রাশিয়ার তৈরি করোনা ভ্যাকসিনকে স্বীকৃতি দিল না বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ গত মঙ্গলবার এত আয়োজন করে রাশিয়া বিশ্বে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন তৈরি করার কথা ঘোষণা করল, কিন্তু তার দুই দিন পরেই হল বড় ছন্দপতন । এবার রুশ করোনা ভ্যাকসিন স্পুটনিক ভি (Sputnik-V) নিয়ে প্রশ্ন তুলল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO. শুধু প্রশ্ন তুলে ক্ষান্ত দেয়নি, রুশ ভ্যাকসিনকে স্বীকৃতি দিতেও নারাজ তারা ।

এত দ্রুত করোনা ভ্যাকসিন তৈরি করা নিয়ে অনেকেই ট্যাঁরা চোখে রাশিয়ার দিকে তাকিয়েছিলেন । যদিও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন করোনা ভ্যাকসিন তৈরির কথা ঘোষণা করার সাথে সাথে গোটা বিশ্বের অন্তত ২০ টি দেশ থেকে ১০০ কোটি করোনা ভ্যাকসিনের অর্ডার ইতিমধ্যে এসে গেছে । তবুও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তালিকা থেকে রুশ করোনা ভ্যাকসিনকে বাদ দেওয়া হল । আপাতত করোনা ভ্যাকসিন তালিকায় যে নয়টি পরীক্ষামূলকভাবে অ্যাডভান্স স্টেজে আছে সেখান থেকে বাদ পড়েছে রাশিয়ার তৈরি স্পুটনিক-ভি।

হেলথকেয়ার গ্লোবাল (এইচসিজি)-এর প্রিন্সিপাল ইনভেস্টিগেটর তথা বেঙ্গালুরুতে কোভিড চিকিত্‍সায় যুক্ত বিশাল রাও বলেন, ”কিছু কিছু টিকা তৈরি করতে বছরের পর বছর কেটে যায়। বর্তমান পরিস্থিতিতে দ্রুত গোটা প্রক্রিয়া শেষ করে ফেলতে চাইছেন নির্মাতারা। কিন্তু সাধারণ মানুষের উপর তা প্রয়োগ করার আগে নিশ্চিত করতে হবে যে এতে কোনও ঝুঁকি নেই।” তিনি আরও বলেন, ”এখনও পর্যন্ত ৭৬ জনের উপর ওই টিকা প্রয়োগ করা হয়েছে। মোট চারটি ধাপে টিকাটির পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করতে হবে। তার জন্য হাজার হাজার রোগীর উপর তা প্রয়োগ করা প্রয়োজন।”

উল্লেখ্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশকে এগিয়ে আসতে স্বাগত জানিয়েছে হু। কোভ্যাক্স ফেসিলিটির আওতায় কোভিড ভ্যাকসিন তৈরির কাজ চলছে। সেখানে রয়েছে নয়টি ভ্যাকসিন। সেই তালিকায় রাশিয়ার ভ্যাকসিনের নাম রাখতে এখনই নারাজ তারা । তবে মঙ্গলবার জেনেভায় সংবাদ সম্মেলনে হু মুখপাত্র তারিক জাসারেভি বলেন, রাশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সঙ্গে যোগাযোগ করে টিকার বিস্তারিত তথ্য চাওয়া হয়েছে।তিনি বলেন, হু নিশ্চিত হতে চায় স্পুটনিক ভি টিকা মানুষের শরীরের জন্য ক্ষতিকর হবে না। এর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানাক রাশিয়া।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন করোনা ভ্যাকসিন তৈরি এবং তার এক মেয়ের শরীরে প্রয়োগের কথা ঘোষণা করার সাথে সাথে  বিশ্বজুড়ে শোরগোল পড়ে।যদিও সেই সময় বিভিন্ন দেশ ও হু টিকা নিয়ে সন্দেহ জানান।অভিযোগ, তাজ়াহুড়ো করে টিকা বাজারজাত করার জন্য মরিয়া রাশিয়া। তাদের তৈরি স্পুটনিক ভি টিকা এখনও পূর্ণাঙ্গ পরীক্ষা সম্পন্ন করেনি। যদিও এই বিতর্কের জবাবে রাশিয়া অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছে ।

অতিমারি পরিস্থিতি সামাল দিতে কালঘাম ছুটছে গোটা বিশ্বের। তার মধ্যেও ক্ষমতাশালী দেশগুলির মধ্যে প্রতিযোগিতা অব্যাহত। তবে করোনায় আক্রান্তদের মৃত্যুমিছিল রোখার চেয়ে চিকিত্‍সাবিজ্ঞানে শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণের লড়াইটাই যেন বেশি করে চোখে পড়ছে। ভারতও সেই দৌড়ে শামিল। কিন্তু তার আগে রাশিয়া করোনার টিকা আবিষ্কার করে ফেলেছে বলে দাবি করায়, দোটানায় পড়েছে ভারত। অবিশ্বাস্য রকমের কম সময়ে তৈরি হওয়া এই টিকার কার্যকারিতা নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। তাই দেশে দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার বাড়তে থাকলেও, দক্ষিণ পশ্চিম এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলির মতো রাশিয়ার কাছ থেকে এখনই টিকা কেনার সাহস পাচ্ছে না ভারত।

মন্তব্য
Loading...