জাতিসংঘে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানালেন রোহিঙ্গা সংকটক আঞ্চলিক নিরাপত্তার হুমকি

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: জাতিসংঘের ৭৪ তম অধিবেশনের সাধারণ পরিষদে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চার দফা প্রস্তাব উত্থাপন করেছেন। রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানের লক্ষে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বক্তব্যে বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের টেকসই প্রত্যাবাসন এবং আত্মীকরণে মিয়ানমারকে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে রাজনৈতিক সদিচ্ছার পূর্ণ প্রতিফলন দেখাতে হবে।’

প্রসঙ্গত শুক্রবার বিকালে জাতিসংঘের জেনারেল অ্যাসেম্বলি হলে অন্যান্য বারের মত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলায় ভাষণ দেন। প্রধানমন্ত্রী তার দ্বিতীয় প্রস্তাবে বলেন, ‘বৈষম্যমূলক আইন ও রীতি বিলোপ করে মিয়ানমারের প্রতি রোহিঙ্গাদের আস্থা তৈরি করতে হবে এবং রোহিঙ্গা প্রতিনিধিদের উত্তর রাখাইন সফরের আয়োজন করতে হবে।’ তৃতীয় প্রস্তাবে বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় থেকে বেসামরিক পর্যবেক্ষক মোতায়েনের মাধ্যমে মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তার ও সুরক্ষার নিশ্চয়তা প্রদান করতে হবে,’। প্রধানমন্ত্রী তার শেষ প্রস্তাবে বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অবশ্যই রোহিঙ্গা সমস্যার মূল কারণসমূহ বিবেচনায় আনতে হবে এবং মানবাধিকার লঙ্ঘন ও অন্যান্য নৃশংসতার দায়বদ্ধতা নিশ্চিত করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বিশ্ব নেতৃত্বদের সামনে অসন্তুষ্টিতে বলেন, ‘এটি বাস্তবিকপক্ষেই দুঃখজনক যে রোহিঙ্গা সঙ্কটের সমাধান না হওয়ায় আজ এই মহান সভায় এ বিষয়টি আমাকে পুনরায় উত্থাপন করতে হচ্ছে। ১১ লাখ রোহিঙ্গা আমাদের আশ্রয়ে রয়েছে। যারা হত্যা ও নির্যাতনের মুখে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছে। রোহিঙ্গা সমস্যা প্রলম্বিত হয়ে তৃতীয় বছরে পদার্পণ করেছে, কিন্তু মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে সুরক্ষা, নিরাপত্তা ও চলাফেরার স্বাধীনতা এবং সামগ্রিকভাবে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি না হওয়ায় এখন পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাও মিয়ানমারে ফিরে যায়নি।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...