সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

আশার আলো দেখতে পাচ্ছে বাংলাদেশ এস জয়শঙ্কর এর হাত ধরে

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক:ভারতের প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক আরও দূর করবার জন্য ভারতের ৩৮ তম পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর গতকাল সন্ধ্যায় ঢাকায় পৌঁছেছিলেন । ভারতের নয়াদিল্লি থেকে বাংলাদেশের বিমান সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তিনি বাংলাদেশ পৌঁছালেন । বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এস জয়শঙ্কর কে স্বাগত জানান ।

সফরের আগেই জানা গিয়েছিল, দু’দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য, কূটনৈতিক সম্পর্ক আরও জোরদার করতে এস জয়শঙ্কর এই সফর করছেন ।  জয়শঙ্করের এই সফরে দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ, সাম্প্রতিকালে যে রোহিঙ্গা সংকট দেখা দিয়েছে এবং বাংলাদেশের সাথে দীর্ঘদিনের অমীমাংসিত তিস্তাসহ ৫৪টি নদীর জল বণ্টন নিয়ে আলোচনা হবার কথা ছিল ।আজ বাংলাদেশে সফরে এসে ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর জানিয়েছেন, পারস্পরিক সমঝোতার ভিত্তিতে তিস্তাসহ অভিন্ন নদীর জলবণ্টন সমস্যার সমাধান হবে। ঢাকার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনা-তে বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেনের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের পর একথা জানালেন এস জয়শঙ্কর।

সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয় শংকর উত্তরে জানালেন,  54 টি অভিন্ন নদী নিয়ে কিভাবে নিজেদের স্বার্থ রক্ষা করা যায় তার সূত্র খুঁজে বের ক্রা হচ্ছে ।  দুই দেশ-এর পারস্পরিক সমঝোতার ভিত্তিতে অভিন্ন নদীর জলবন্টন সমস্যা সমাধান করা হবে ।এছাড়া তিনি আশ্বাস দেন,  বাংলাদেশের সব ধরনের উন্নয়নমূলক কাজে ভারতকে পাশে পাবে বাংলাদেশ ।

এই দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় উঠে এসেছে দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে থাকা তিস্তা জলবণ্টন সমস্যার বিষয়টি । উল্লেখ্য বেশ কয়েক বছর ধরে এই চুক্তি বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে আসছিল বাংলাদেশ ।  কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় হলেও একথা সত্যি, বাংলাদেশের প্রতিবেশী রাজ্য পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর ঘোর  আপত্তিতে সেই চুক্তি বাস্তবায়িত হতে পারেনি । তবুও এস জয়শঙ্কর আশার বাণী শুনিয়েছেন । তিনি জানিয়েছেন তিস্তা জলবণ্টন চুক্তির ব্যাপারে ভারত সরকার আগের অবস্থানেই রয়েছে ।  প্রতিশ্রুতি মত ভারত সেই চুক্তি করার চেষ্টা করবে ।এছাড়া রোহিঙ্গা সংকটের বিষয়ে তিনি বলেন,  সবার সুবিধার কথা ভেবে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে জোর দেবে ভারত ।

 

মন্তব্য
Loading...