এবার এক ভারতীয় নারী এক সাথে জন্ম দিলেন পাঁচটি শিশু সন্তান

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ এর আগে  একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম দিয়ে রেকর্ড করেছিলেন মণিপুরের বিষ্ণুপুর জেলার বাসিন্দা গীতা । আবারও এক সাথে পাঁচ পাঁচটি সন্তানের জন্ম দিয়ে রেকর্ডের খাতায় নাম তুলে ফেললেন জয়পুরের একজন মহিলা । গতকাল শনিবার জয়পুরের জানান হাসপাতালে  ২৫ বছর বয়সী রুক সানা একসাথে জন্ম দিয়েছেন পাঁচটি শিশু সন্তান যার মধ্যে একটি শিশু মারা গেছে এবং বাকী শিশুদের মধ্যে দুই জন ছেলে এবং দুই জন মেয়ে সন্তান ।

জয়পুরের জানানা হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ২৫ বছরের রুক সানা । গতকাল শনিবার তিনি পাঁচটি সন্তান প্রসব করেন । হাসপাতালের সুপার লতা রাজরিয়া জানিয়েছেন,  জন্মের পরেই একটি শিশুর মৃত্যু হয়েছে । দু’টি ছেলে ও দু’টি মেয়ে বেঁচে আছে তাদের শারীরিক অবস্থাও খুব একটা ভালো নয়। তাদের ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ।

জয়পুরের জানান হাসপাতালে যে চিকিৎসক রুকসানার ছিলেন তিনি জানিয়েছেন, নির্ধারিত সময়ের আগেই প্রসব হয়ে হয়েছিল যুবতীর। প্রিম্যাচিওর হওয়ার কারণে জন্মের পরেই একটি শিশুর মৃত্যু হয়। বাকি চার সদ্যোজাতও প্রিম্যাচিওর।

তবে একসাথে জমজ সন্তান জন্ম দেওয়া তেমন একটা বড় ঘটনা নয় । কারন অনেক মা আছেন যারা এক সাথে দুইটি সন্তানের জন্ম দেন । এমন কি মাঝে মধ্যে একসাথে তিনটি সন্তানের জন্মও বিরল নয় । কিন্তু এক সাথে পাঁচটি !  হাসপাতাল সুপার জানিয়েছেন, এক সঙ্গে পাঁচটি প্রিম্যাচিওর শিশুর জন্ম দেওযাটা বিরল ঘটনা ।

এখনও হাসপাতালে রুক সানা ভর্তি আছেন । ডাক্তাররা জানিয়েছেন “মা” এখন সুস্থ আছেন কিন্তু যে চারজন শিশু বেঁচে আছে তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক । ডাক্তারের কথায়, “চারটি শিশুকে ২৪ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তাদের হাত-পা পরিপুষ্ট নয়। শ্বাসেরও সমস্যা রয়েছে।”

উল্লেখ করা যেতে পারে,  আমাদের দেশে এর আগে একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম দিয়ে রেকর্ড করেছিলেন মণিপুরের বিষ্ণুপুর জেলার বাসিন্দা গীতা। ২০১৪ সালে একই সঙ্গে চারটি কন্যা এবং একটি পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন তিনি। দশ মিনিট অন্তর মোট পাঁচটি সন্তান প্রসব করেছিলেন গীতা। তবে তাঁর ক্ষেত্রেও প্রসবের পরেই একটি শিশুর মৃত্যু হয়। এর পরে ২০১৬ সালে একসঙ্গে পাঁচটি কন্যাসন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন রাইপুরের বাসিন্দা মনিতা কুমারী। গত মে মাসেই পোলান্ডে একসঙ্গে ছয় সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন এক মহিলা। যাদের মধ্যে ছিল চারটি মেয়ে ও দু’টি ছেলে। এবার রুকসানার নামও রেকর্ড বুকে উঠে গেল ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য