সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

লকডাউনে দুধ কিনতে বেরিয়ে পুলিশের মারে মৃত্যু এক ব্যাক্তির

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ লকডাউনের মধ্যে অনেকেই বাইরে বের হচ্ছেন কারনে বা অকারনে । টহলরত পুলিশ রাস্তায় কোন জটলা রুখে দিচ্ছে । কোথাও কোথাও লাঠি চার্জ করতে হচ্ছে । এমনই এক ঘটনা ঘটেছে হাওড়ায় । লকডাউনে দুধ কিনতে বেড়িয়ে পুলিশের হাতে মার খেয়ে মৃত্যু হল ৩২ বছরের এক ব্যাক্তির – এমনই অভিযোগ করেছে মৃতের স্ত্রী ।

দেশ জুড়ে চলছে প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডাকা ২১ দিনের লকডাউন । অনেকেই এই লকডাউন বিষয়টি এখনও পর্যন্ত হালকাভাবে নিচ্ছেন । ফলে অনেকটা ছুটির মেজাজের মতই ঘর ছেড়ে রাস্তায় বেরিয়ে আড্ডা দিচ্ছেন । আবার অনেকে সত্যিকারের প্রয়োজন নিয়ে বাইরে বেরিয়ে আসছেন । হাওড়ার বাসিন্দা ৩২ বছরের লাল স্বামী লকডাউনের প্রথম দিনেই দুধ কেনার জন্য বাড়ীর বাইরে বেরিয়েছিলেন । কিন্তু ঠিক সেই সময় জমায়েত সরাবার জন্য পুলিশ লাঠি চার্জ করে । মৃত ব্যাক্তির স্ত্রী অভিযোগ করেছেন, পুলিশ যখন জমায়েত সরাতে গিয়ে লাঠিচার্জ করলে সেইসময় তাঁর মৃত্যু হয়।

এদিকে পুলিশের পক্ষ থেকে লাঠি চার্জে লাল স্বামীর মৃত্যু অস্বীকার করেছে ।  হাওড়া সিটি পুলিশের ডিসি সাউথ রাজ মুখোপাধ্যায় অবশ্য লাঠি চালানোর অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁর দাবি, মৃত ব্যক্তি অসুস্থ ছিলেন। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়েছে। এদিকে বারবার সতর্কমূলক প্রচার করা সত্ত্বেও বেশ কিছু জায়গায় মানুষের রাস্তায় বের হওয়া আটকানো যাচ্ছে না কোন ভাবেই ।

এদিকে সাধারন মানুষের অসুবিধার কথা ভেবে রাজ্য সরকার বাজার ঘাট চালু রেখেছেন । কিন্তু সমাজের কিছু মানুষ করোনা সংক্রমণের কোন সতর্কবার্তাকে আমল না দিয়ে কিম্বা নিয়মের কোন তোয়াক্কা না করেই বাজারে কিম্বা দোকানে গাদাগাদি করে জিনিষপত্র কিনছেন অবাধে । ফলে লকডাউনে আগামী দিনে স্টেজ-৩ প্রতিহত করা আদৌ সম্ভব হবে কি না সে বিষয়ে অনেকেই সন্দেহ করতে শুরু করেছেন ।

 

মন্তব্য
Loading...