সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

আর্থিক অস্বচ্ছলতাকে হার মানিয়ে অদম্য জেদের জেরে আইপিএস অফিসার হলেন এই বঙ্গতনয়া

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ- আর্থিক অবস্থাকে হার মানিয়ে আইপিএস অফিসার হলেন বীরভূমের বঙ্গতনয়া। আর্থিক অবস্থা যে মেধার ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনা তা আরও একবার প্রমান করে দিলেন বীরভূমের শ্বেতা আগরওয়াল। অভাব অনটনের সাথে নিত্য লড়াই করে আজ একজন আইপিএস অফিসার হিসেবে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন তিনি।

নিম্ন মধ্যবিত্ত যৌথ মারাঠি পরিবারে বড় হয়েছেন শ্বেতা। তার পিতা পেশায় একজন সামান্য মুদি। যৌথ পরিবারে বড় হয়েছেন এবং যেহেতু তিনি একজন কন্যা সন্তান তাই প্রতিনিয়ত তাকে খোঁটা দিত তার আত্মীয় পরিজনেরা। ১৫ জন ভাইবোনের মধ্যে শ্বেতা ছিলেন সবচেয়ে ছোট। বরাবরই তিনি পড়াশোনা করতে ভালোবাসতেন। তার পড়াশোনার ইচ্ছে দেখে তাকে তার বাবা শত কষ্ট পার করেও চন্দননগরের কনভেন্ট স্কুলে ভর্তি করান। এরপর তিনি সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ থেকে স্নাতক পাশ করেন। এরপর তিনি এমবিএ করেন। এমবিএ পাশ করার পর তিনি একটি চাকরিও পান কিন্তু সেটি ছেড়ে দিয়েছিলেন কারণ বরাবরই তিনি স্বপ্ন দেখেছিলেন একজন আইপিএস অফিসার হওয়ার।

এরপর তিনি তার স্বপ্নকে মূল লক্ষ্য রেখে পড়াশোনা শুরু করেন। তৃতীয় বার পরীক্ষা দিয়ে তিনি ১৯ তম স্থান দখল করেন। নিজের স্বপ্ন পূরণ করেন এবং মা বাবার মুখ উজ্জ্বল করেন। এখন তিনি বীরভূমেরই একটি জেলার শাসক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেছেন। তার স্বপ্নপূরণের যে ইচ্ছে তার কাছে হার মানতে হয়েছে দারিদ্র্যকে। শুধু পরিবারই নয়, নিজের এলাকাকেও গর্বিত করেছেন এই বঙ্গতনয়া।

মন্তব্য
Loading...