সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

২৩ বছরের ইলেকট্রিশিয়ান চিহ্নিত হল পুলওয়ামা জঙ্গী হামলার মাস্টারমাইন্ড হিসেবে

তথাকথিত কম পরিচিত জইশ-ঈ-মহম্মদ জঙ্গী মুদাসির আহমেদ খান, যে “মোহাম্মাদ ভাই” নামেও পরিচিত, চিহ্নিত হোলো পুলওয়ামা জঙ্গী হামলার মাস্টারমাইন্ড হিসেবে।

 

সমস্ত তথ্য প্রমান মোটামুটি সংগ্রহের পর নিরাপত্তা আধিকারিকরা জানায় যে ২৩ বছর বয়সী আহমেদ খান পুলওয়ামারই বাসিন্দা।পেশায় সে একজন স্নাতক ডিগ্রীধারী ইলেকট্রিশিয়ান। এই “মোহাম্মাদ ভাই”ই জঙ্গী হামলায় ব্যাবহিত সমস্ত গাড়ী ও বিস্ফোরকের ব্যাবস্থা করেছিল।

 

মুদাসির আহমেদ খান তার স্নাতকের পাঠ সম্পূর্ণ করার পর  ইলেকট্রিশিয়ান হিসেবে বছরের ডিপ্লোমা কোর্স সম্পূর্ণ করে।মনে করা হছে যে, ২০১৮এর ফেব্রুয়ারী তে সুঞ্জাওান আর্মি ক্যাম্পে যে আত্মঘাতী আক্রমণ হয়েছিল যাতে জন পারসোনাল এবং সিভিলিয়ান মারা যান তাতে এই  “মোহাম্মাদ ভাই” যুক্ত ছিল। আরও মনে করা যাছে যে, ২০১৮ এর জানুয়ারী মাসে লেথপরাতে ঘটা জঙ্গী  আক্রমনের পেছনেও তার হাত ছিল।

 

১৪ই ফেব্রুয়ারী পুলওয়ামা জঙ্গী হামলার পর তার বাসস্থান অনুসন্ধান করে টি মারুতি ইকো মিনিভ্যান পাওয়া যায় যা আত্মঘাতী হামলায় ব্যাবহৄত হয়েছিল।

 

নিরাপত্তা আধিকারিকদের কাছ থেকে পাওয়া সুত্র অনুযায়ী পুলিশ সাজ্জাদ ভাট নামে  আর একজন জঙ্গীর অনুসন্ধানে আছে যে বর্তমানে একজন প্রত্যক্ষ জঈশী জঙ্গী হিসেবে শনাক্ত হয়েছে।

মন্তব্য
Loading...