সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

জনস্বার্থ মামলায় রায় কলকাতা হাইকোর্টের, করোনা দেহ সৎকারে উপস্থিত থাকতে পারবেন আত্মীয়

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ এতদিন করোনা আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা গেলে সেই দেহ হাসপাতাল থেকেই সরাসরি সৎকারের জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হত । মৃতের দেহ সৎকারে অংশ নেওয়া কিম্বা ‘শেষ দেখা’ দেখতে পাবার অনুমতি ছিল না । এবার এক জনস্বার্থ মামলায় রায় দিয়ে কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়েছে, এবার থেকে সত্‍কারের সময় উপস্থিত থাকতে পারবে পরিবার। দূর থেকে মিলবে শেষ দেখার সুযোগ।

মার্চ মাস থেকেই দেশে করোনা সংক্রমণ শুরু হয়েছে । যদিও চীনের উহান প্রদেশ থেকে গত বছর নভেম্বর থেকেই করোনা সংক্রমণ শুরু হয় । করোনা সংক্রমণের একটি বেদনাদায়ক দিক হল, পরিবারের কেউ এই মারন ভাইরাসে সংক্রামিত হলে একদিকে যেমন সংস্পর্শে বা সেবা করার সুযোগ ছিল না, অন্য দিকে মারা গেলে তাকে শেষ দেখাটুকুও দেখতে দেওয়া হত না । এবার এক জনস্বার্থ মামলায় কলকাতা হাইকোর্ট সেই বিধিনিষেধে কিছুতা শিথিলতা নিয়ে এল ।

কলকাতা হাইকোর্টের রায়ে বলা হয়েছে,  এবার থেকে সত্‍কারের সময় উপস্থিত থাকতে পারবে পরিবার। দূর থেকে মিলবে শেষ দেখার সুযোগ। তবে মেনে চলতে হবে কঠোর নিয়ম । হাসপাতাল থেকে সরাসরি মৃতদেহ  শেষকৃত্যের জন্য পাঠানো হবে । শেষ দেখা দেখতে দেওয়া হলেও মেনে চলতে হবে নির্দিষ্ট স্বাস্থ্যবিধি । কোনভাবেই দেহ ছুঁতে পারবে না বাড়ির লোক ।

ফলে, এ ক্ষেত্রে সত্‍কারের আগে সেখানেই স্বজনকে শেষ দেখার সুযোগ পাবেন পরিবার। মৃতদেহের মুখের কাছে খোলা থাকবে জিপব্যাগের চেন। মৃতের মুখ দেখতে পাবেন পরিবারের লোকেরা। তবে জনস্বার্থ মামলার রায়ে মৃত দেহ দেখতে দেওয়া এবং সৎকারের সময় উপস্থিত থাকার অনুমতি দেওয়া হলেও, এই সমস্ত নিয়মবিধির সঙ্গে রাজ্য সরকার বা পুরসভা অতিরিক্ত সতর্কতামূলক ব্যবস্থা আরোপ করতে পারে বলেই জানিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ।

মন্তব্য
Loading...