যুদ্ধপরিস্থিতিতে পাকিস্থানের পাশে নেই চিন, কড়া পদক্ষেপ চিনের

0

গত ১৪ ই ফেব্রুয়ারী ভারতের পুলয়ামাতে ভারতীও সেনাবাহিনির সীআরপিএফ এর কনভয় এর ওপর পাকিস্থানের জঙ্গিগোষ্ঠী  জইশ-ঈ-মহাম্মাদ এর অতর্কিত আক্রমনের ফলে ৪৪ জন জাওয়ান শহীদ হয়ে যান।

এই আক্রমনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে গোটা দেশ।পাকিস্থান ভারতের সাথে বার বার সমঝতা চুক্তি লঙ্ঘন করায় ভারতের তরফ থেকে পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে কড়া ভাষায় আক্রমন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।এর পাল্টা হিসেবে ভারতীওবায়ুসেনা পাকিস্থানের বালাকোটে জইশ এর ঘাটিতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে বেস কয়েকটি জঙ্গিঘাটি নিকেশ করে। কিন্তু এর প্রতিবাদে পাকিস্থান ভারতীও বায়ুসেনার ওপর আঘাত হানে। 

পেন্টাগনের নতুন পরিকল্পনাঃ আফগানিস্থান থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার

এই জঘন্য কার্যকলাপের নিন্দা করে সারা পৃথিবীর শাসকগোষ্ঠী ভারতের পক্ষে এবং পাকিস্থানের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করে।পাকিস্থানের পরম বন্ধু চিন জানিয়ে দেয় যে যুদ্ধকালীন পরিস্থিতি তৈরি হলে তারা কখনোই পাকিস্থানের সঙ্গ দেবে না

আমেরিকা পাকিস্থানকে যে এফ-১৬ বিমান সরবরাহ করেছিলো তাতে তাদের শর্ত ছিল যে আমেরিকার অনুমতি ছাড়া পাকিস্থান এই বিমান ব্যাবহার করতে পারবেনা।কিন্তু ভারতীও বায়ুসেনা পাকিস্থানের যে বিমান ধ্বংস করে তার অংশ  প্রমানসরূপ তুলে দেয় আমেরিকার হাতে।তার ফলে জল্পনা তৈরি হয়েছে যে আমেরিকা হয়তো এই বিমান কেড়ে নেবে তাদের কাছ থেকে।

 

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...