সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

গবেষক এবং সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি চীনের

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ করোনার আঁতুড়ঘর ছিল চীন । সেখান থেকেই গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে করোনা ভাইরাস । অন্যদিকে চীনর জিনজিয়াংয়ে প্রতিদিন লাখ লাখ মুসলিম সংখ্যালঘুদের উপর অকথ্য অত্যাচার চালাচ্ছে চীনা সরকার । অথচ সেই সমস্ত মুসলিমদের জন্য মুসলিম দেশগুলিও নীরব থেকে গেছে । সম্প্রতি কিছু প্রতিবেদনে এই ঘটনা প্রকাশিত হবার পর সংশ্লিষ্ট গবেষণা সংস্থা ও গবেষকদের বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি দিয়েছে চীন ।

দ্য গ্লোবাল টাইমসের একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, চীনের বিরুদ্ধে মুসলিম সম্প্রদায়কে নিয়ে গুজব ছড়ানোর জন্য জার্মান গবেষক অ্যাড্রিয়ান জেঞ্জ এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠান অস্ট্রেলিয়ান স্ট্র্যাটেজিক পলিসি ইনস্টিটিউটের বিরুদ্ধে মামলা করবে চীনা কর্তৃপক্ষ।জার্মান গবেষক অ্যাড্রিয়ান জেঞ্জ গবেষণা করার পর একটি প্রতিবেদনের মাধ্যমে জানিয়েছিলেন, চীনের জিনজিয়াংয়ে বসবাসরত লাখ লাখ মুসলমান সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর ওপর নির্যাতন-নিপীড়ন করে আসছে চীন সরকার। চীনের বিষয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগের ভিত্তিতে জার্মান গবেষক অ্যাড্রিয়ান জেঞ্জ এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠান অস্ট্রেলিয়ান স্ট্র্যাটেজিক পলিসি ইনস্টিটিউটের বিরুদ্ধে মামলা লাল সরকার ।

জানা গেছে, জার্মান গবেষক অ্যাড্রিয়ান জেঞ্জ সম্প্রতি একটি গবেষণা প্রতিবেদনে বলেন, জিনজিয়াংয়ের মুসলমান সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর জন্মহার হঠাৎ ব্যাপক কমে যাওয়ার কারণ তাদের জন্মনিরোধের জন্য কৌশলগত পদক্ষেপ নিয়েছে চীন। অন্য দিকে উইগুরদের মুসলিমদের উপর অত্যাচারের কাহিনী সামনে নিয়ে আসে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও । সে সময়ে,  জোর করে উইগুর মুসলিমদের ওপর  পরিবার পরিকল্পনা চাপিয়ে দেওয়ার নিন্দা জানিয়েছেন পম্পেও।

এবিষয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লেছিলেন, “জিনজিয়াংয়ের ওপর চলমান নির্যাতন-নিপীড়নেই বোঝা যায়, চাইনিজ কমিউনিস্ট পার্টির (সিসিপি) মানুষের জীবন এবং মৌলিক মানবাধিকারের প্রতি কোনো শ্রদ্ধাবোধ নেই।” পাশাপাশি পম্পেও চীনা সরকারের এই অমানবিক এবং ভয়াবহ কর্মকাণ্ড এখনই বন্ধ করতে সিসিপির প্রতি আহ্বান জানান। সেই সঙ্গে  অমানবিক নির্যাতন বন্ধ করতে জাতিসংঘে সব দেশকে একতাবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

মন্তব্য
Loading...