আকাশ থেকে উল্কা এসে পড়লো ধান ক্ষেতের মাঝখানে – চমকে গেল সবাই । আসলেই কি সেটা উল্কা !

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ ধানের ক্ষেতে চাষ করছিল চাষীরা । দিন দুপুরে হঠাৎ করেই চারিদিকে কিছু কোন কিছুই না,  হঠাৎ বিকট শব্দ করে ধান ক্ষেতের মাঝখানে এসে পড়লো প্রকাণ্ড একটা পাথর খন্ড ।  সবাই তো ভয়ে হিমশিম । এটা আবার কি ?  কিছুক্ষণ পর একটু  সাহস করে এগিয়ে গিয়ে দেখল প্রায় চার ফুট গর্ত করে একটি পাথর পড়ে আছে । পাথরটি থেকে তখনো ধোঁয়া উঠছে ।

এই অবাক করা ঘটনাটা  ঘটেছে বিহারের মধুবনী জেলায় । গোলাকার আকৃতির এই পাথরের ওজন প্রায় 15 কেজি । যার চারপাশে তৈরি হচ্ছে শক্তিশালী চুম্বক ক্ষেত্র । লোহার কোন কিছু নিয়ে গেলে আটকে যাচ্ছে সেটির গায়ে । আপাতদৃষ্টিতে সকলের ধারণা করছে,  এটি আসলে উল্কাপিণ্ড ।

, আকাশ থেকে উল্কা এসে পড়লো ধান ক্ষেতের মাঝখানে – চমকে গেল সবাই । আসলেই কি সেটা উল্কা !

অমসৃণ গোলাকার ওই পাথুরে জিনিসটার গায়ে আবার রয়েছে অসংখ্য খাঁজ। মধুবনীর জেলাশাসক কপিল অশোক জানিয়েছেন, ক্ষেতের মধ্যে প্রায় ৪ ফুট গভীর গর্ত করে দিয়েছে এই গোলাকার বস্তু। আপাত দৃষ্টিতে দেখে সকলেই ভাবছেন এটা উল্কাপিণ্ড। ওজনে প্রায় ১৫ কিলোগ্রাম এই জিনসটি আপাতত রাখা হয়েছে বিহারের মিউজিয়ামে। চাষরত চাষিরা  সাহস করে পাথুরে জিনিসটা জমা করে দেন স্থানীয় প্রসাসনের কাছে। তারপর তাদের তরফেই পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য এই জিনিসটা মিউজিয়ামে রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বিহারের শ্রীকৃষ্ণ সায়েন্স সেন্টারের বিজ্ঞানীরা আপাতত পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাচ্ছেন এই পাথরটিকে নিয়ে। বিজ্ঞানীদের অনুমান, এটি উল্কাপিণ্ডই। কারণ এর গায়ে থাকা খাঁজ যুক্ত অংশ কেবলমাত্র কোনও উল্কাপিণ্ডেই থাকা সম্ভব। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, সাধারণত উল্কা পৃথিবীর বায়ুস্তর ভেদ করার সময় এই খাঁজ তৈরি হয়ে থাকে। কিন্তু এর পাশাপাশি বিজ্ঞানীরা এ-ও জানিয়েছেন যে, পুরো পরীক্ষার পরে তবেই সঠিক ভাবে বলা সম্ভব হবে যে এটা উল্কাপিণ্ড, না কি অন্যকিছু।

উৎস বিকট শব্দে আকাশ থেকে পড়ল প্রকাণ্ড পাথর, ধানক্ষেতে ৪ ফুট গর্ত! উল্কা নাকি?
আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.