আন্তর্জাতিক চাপে কোনঠাসা চীন, করোনা তদন্ত করতে দিতে রাজী হতে বাধ্য হল চীন

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ কথায় বলে  চীনের  খবর নাকি দেশের বাইরে বের হয় না, যদি চিনের সরকার না চায় । কিন্তু এবার আন্তর্জাতিক চাপে কোনঠাসা চীন, অন্যদেশকে নিজের দেশে করোনা তদন্ত করতে দিতে রাজী হতে বাধ্য হল । অবশেষে  বেজিংয়ের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে করোনা ভাইরাসকে ঘিরে অন্যান্য দেশের দাবি মত তদন্ত করতে দিতে রাজী আছে তাড়া ।

চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সোমবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বৈঠকে  জানান স্বচ্ছ, নিরপেক্ষ ও দায়িত্বপূর্ণ তদন্তে রাজি তারা। অবশ্য অন্যান্য দেশ বারবার করোনার তদন্তের দাবি জানিয়ে আসছিল, কিন্তু চীন সেই তদন্ত করতে দিতে রাজী হয় নি এতদিন । নাছোড়বান্দা আমেরিকা বরাবরই দাবি জানিয়ে আসছিল করোনা নিয়ে চীন তথ্য গোপন করছে । সেখানে নিরপেক্ষ তদন্ত হোক ।

গতবছর নভেম্বরে চিনের উহান প্রদেশে সবার প্রথম করোনা সংক্রামিত হয়েছিল । তারপর দেশের গণ্ডি পেরিয়ে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে এই মারন ভাইরাস । উল্লেখ্য অস্ট্রেলিয়াই প্রথম দেশ যে করোনা ভাইরাসের তদন্ত দাবি করেছে । অন্যদিকে সুপার পাওয়ার আমেরিকা পর্যন্ত নাজেহাল কোভিড ১৯ এর কাছে । তারাও ক্রমাগত দাবি জানিয়েছে ।

অবশ্য চিনকে এভাবে কোনঠাসা করার কাজে উল্লেখ্যযোগ্য ভুমিকা নিয়েছে আমেরিকা । এরপর এক এক করে অন্যরা দাবী জানাতে শুরু করে ।  অস্ট্রেলিয়ার  বিদেশমন্ত্রী মরিস পাইনে জানান, যেভাবেই হোক এই সংক্রমণ ছড়ানোর কারণ সন্ধান অত্যন্ত জরুরি এবং তাতে নিরপেক্ষ হয়ে তদন্ত করতে হবে। এই খসড়া প্রস্তাবে যে সব দেশ সমর্থন করেছে, তার মধ্যে রয়েছে ভারত, জাপান, ব্রিটেন, দক্ষিণ কোরিয়া, ব্রাজিল ও কানাডা।

সোমবারে বিশ্বপর্যায়ের মিটিং এ অন্যান্য দেশের চাপে চীন নিজের দেশে তদন্ত করতে দিতে রাজী হয় । উক্ত বৈঠকে  সকলের দাবী মেনে  মিলিয়ে  তদন্তে সাড়া দিয়েছে। এছাড়া বৈঠকে, বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা  হু-র ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছিল, তারও নিরপেক্ষ তদন্তে রাজি হয়েছে বেজিং বলে খবর। এ প্রসঙ্গে চিনের প্রেসিডেন্ট জিনপিং বলেন, নিরপেক্ষ তদন্তের ভাবনাকে সবসময় সমর্থন করে চিন। এতে করোনার উৎস সন্ধান করতে সুবিধা হবে। তদন্তের গতিপ্রকৃতি কি হবে, কীভাবে শুরু হবে তদন্তের কাজ, তা নিয়ে মঙ্গলবার খসড়া তৈরি করবে ১২০টি সদস্য দেশ। সব কটি দেশ এই কাজে সহমত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...