এবারে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের গরুর মাংস খাওয়ার বিতর্কের বিরুদ্ধে পরিচালকের পাশে দাঁড়ালো তৃণমূলের সাংসদরা

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ বিয়ের পর থেকেই যেন বিতর্ক ছাড়ছে না সৃজিত মুখোপাধ্যায় এবং তাঁর স্ত্রী মিথিলাকে। প্রথমে ভিন্ন ধর্মে বিয়ে এবং পরবর্তীতে শ্বশুরবাড়িতে গোমাংস ভক্ষণ। একেবারে যেন গোঁড়া হিন্দুত্ববাদীদের সংস্কারকে নাড়িয়ে দিয়েছে। ফলে পরিচালকের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে ভারতীয় নাগরিকের এক অংশ। কিন্তু পরিচালক পাশে পেলেন তাঁর কলিগ এবং তৃণমূলের দুই সাংসদ দেব এবং নুসরতকে।

চলতি মাসেই বিয়ে করেন টলিউডের বিখ্যাত পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী মিথিলাকে বিয়ে করেন তিনি। অনেক দিন ধরেই টলি পাড়ায় গুঞ্জন চলছিল যে বিয়ে করতে চলেছেন সৃজিত। তবে পাত্রী নিয়ে ছিল ধন্ধ। কেনোনা এই পরিচালকের সাথে জড়িয়েছে অনেক অভিনেত্রীর নাম। তবে যে অভিনেত্রীর সাথে বিয়ে হবে বলে ধরে নিয়েছিল সবাই সেই জয়া এহসান কে শেষ পর্যন্ত বিয়ে না করে মিথিলাকেই বিয়ে করলেন এই পরিচালিক। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই এই কাপল সমানে কোননা কোনও কারণে উঠে এসেছে খবরের শিরোনামে। তা সে অন্য ধর্মে বিয়ে হোক কিংবা তাঁর স্ত্রীর প্রাক্তন স্বামীর মতামত প্রকাশ্যে আসাই হোক। এবারে যে কারণে এই দম্পতি খবরের শিরোনামে তা হল সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে গোমাংস ভক্ষণ।

পরিচালক তাঁর সোশ্যাল মিডিয়া সাইটে কিছুদিন আগেই পোস্ট করেছিলেন একটি ছবি। সেখানে ক্যাপসান ছিল যে, প্রথম শ্বশুরবাড়িতে খাওয়া। আর সেখানেই মেনুতে ছিল গোমাংসের উল্লেখ। আর তাই নিয়েই সরব হয়েছেন কিছু ভারতীয়। তবে কিছুকিছু লোক জন পাশে দাঁড়িয়ে ব্যাপারটাকে সমর্থনও করেছে। তাদের মধ্যে আমরাতো আগেই তাসলিমা নাসরিনের কথা জেনেছি। আর এখন যে দুজনের নাম সবচেয়ে বেশী শোনা যাচ্ছে তাঁরা হলেন দেব এবং নুসরত। এরা দুজন অভিনেতার পাশাপাশি তৃণমূলের সাংসদও বটে। এই প্রসঙ্গে নুসরত লিখেছেন যে, “Good Done”.

যদিও এই প্রসঙ্গে পরিচালকের মন্তব্য হল,” হিন্দু ধর্ম নিয়ে কথা আপনার মত অশিক্ষিতের মুখে বেমানান। ঋক বেদ, মনুস্মৃতি, ও গৃহসূত্রর কিছু শ্লোক দেব খাওয়াদাওয়া নিয়ে, রোজ সকালে কান ধরে ছাদে দাঁড়িয়ে মুখস্ত করবেন। ভদ্রভাবে বোঝালাম, নয়ত মনে রাখবেন ২২ শে শ্রাবণের সংলাপ কিন্তু আমারই লেখা।” যদিও এই প্রসঙ্গে টলি পাড়ার আর কারুর কোনও মন্তব্য শোনা যায়নি।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...