ব্যবসায়ীর গোডাউনে বে আইনি রেশন দ্রব্য মজুত হাবড়ায়; গ্রেপ্তার দুই চাল ব্যবসায়ী

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ রাজ্যের অন্যতম ব্যবসাকেন্দ্র উত্তর চব্বিশ পরগনার হাবড়াতে এক ব্যবসায়ীর গোডাউনে আচমকা হানা দিয়ে উদ্ধার করা হল ১৩৯ বস্তা বে আইনি রেশন সামগ্রী । বে আইনি রেশন দ্রব্য মজুত করার জন্য দুই ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে । খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের খাস তালুক হাবড়াতে এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর সাধারন মানুষের মধ্যে অসন্তোষ দানা বাঁধতে শুরু করেছে ।

করোনা পরিস্থিতি সামাল দেবার জন্য দেশ জুড়ে চলছে টানা লকডাউন । সাধারন মানুষ কর্মহীন হয়ে দুশ্চিন্তায় ঘরে বসে আছে । সরকারীভাবে ক্ষুধার্ত মানুষের মুখে দুবেলা অন্ন তুলে দেবার ব্যবস্থা করা হলেও যথেষ্ট নয় । এ হেন পরিস্থিতিতে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রীর বিধানসভা এলাকাতেই গত মঙ্গলবার গভীর রাতে এক ব্যবসায়ীর গোডাউনে হানা দেয় পুলিশ এবং খাদ্য দপ্তরের আধিকারিকরা । উদ্ধার করে  চাল, গম ও আটা মিলিয়ে ১৩৯ বস্তা রেশনের খাদ্যসামগ্রী ।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার গভীর রাতে এক গোপন সুত্রে খবর পেয়ে খাদ্য দপ্তরের আধিকারিকরা এবং হাবড়া এক নম্বর ব্লকের বিডিও ও হাবড়া থানার আইসি হানা দেয় হাবড়ার জয়গাছির রথতলা এলাকায় একটি গোডাউনে ।  প্রশাসনের তত্‍পরতায় ওই গোডাউন থেকে উদ্ধার করা হয় ১৩৯ বস্তা চাল ও আটা। গ্রেপ্তার করা হয় দুই ব্যবসায়ীকে । সিল করে দেওয়া হয়েছে গোডাউনটিকে । 

পুলিশের পক্ষ থেকে জানা গেছে যে দুই ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদের নাম অনুপ দে ওরফে কানু দে(৬৫) এবং অরূপ বোস(৫০)। তাদের বাড়ি হাবড়া জয়গাছি রথতলা এলাকায়। এদের মধ্যে  অনুপ দে ওরফে কানু দে নামে গোডাউনটি ছিল । সে   স্থানীয় এক চাল ব্যবসায়ী অরূপ বোসকে গোডাউন ভাড়া দিয়েছিলেন। অনুপ দে এবং অরূপ বোস দুজনেই যৌথভাবে বেআইনি রেশন সামগ্রী পাচারের এই ব্যবসা করতেন বলে জানা গিয়েছে। এই ঘটনার পর পুলিশের পক্ষ থেকে  গোডাউনে মজুত করা রেশন সামগ্রী কিভাবে এবং কোথা থেকে তাদের কাছে আসতো সেই বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...