কর্মচারীদের বেতন পরিকাঠামো নিয়ে ফের ধোঁয়াশা, পুরানো বেতন নীতি প্রত্যাহার করল কেন্দ্র

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ চাকরীজীবী বা কর্মচারীদের বেতনের উপর খাঁড়ার ঘা পড়তে চলেছে । প্রথমে কেন্দ্র থেকে এক নির্দেশিকায় জানানো হয়েছিল, লকডাউন চললেও কোনভাবেই কর্মী ছাটাই বা বেতন বন্ধ করা যাবে না । এবার সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে চলেছে কেন্দ্র । ১৭ই মে কেন্দ্র সরকার থেকে পুরানো নির্দেশ তুলে নেওয়ায় এখন থেকে বেসরকারি সংস্থা বা কর্তৃপক্ষের কর্মী ছাঁটাই অথবা বেতন কাটার ক্ষেত্রে আর কোনও‌ বাধা-নিষেধ থাকল না ।

করোনা পরিস্থিতি সামাল দেবার জন্য গত ২৫ শে মার্চ থেকে গোটা দেশকে লকডাউন করে দেবার সিধান্ত নেন প্রধান মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী । প্রথম দফায় লকডাউনের মেয়াদ ছিল ২১ দিন । সেই সময় কেন্দ্র নির্দেশ জারি করেছিল, লকডাউনের সময় যেন কর্মী ছাঁটাই এবং বেতন কাটা না হয়। তেমনটা করলে শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে । অথচ সেই নির্দেশ গত ১৭ ই মে কেন্দ্র সরকার তুলে নেবার কথা ঘোষণা করেছে ।

গোটা দেশে এই মুহূর্তে লকডাউনের চতুর্থ ইনিংস চলছে । অর্থনীতির দিক থেকে একেবারে কোনঠাসা হয়ে দেশের অনেক পরিষেবা খুলে দিতে বাধ্য হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার । পাশাপাশি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের নিজ রাজ্যের জন্য নিজ দায়িত্বে সিদ্ধান্ত নিতে বলা হয়েছে । কিন্তু এবার কেন্দ্রীয় সরকারের বেতন এবং ছাটাই নীতির অবস্থান থেকে সরে আসায় বিপদে পড়তে চলেছেন কোটি কোটি মানুষ । অন্য দিকে এই নয়া সিদ্ধান্তে  বেসরকারি সংস্থার মালিকেরা খুশি হবেন তা বলাই বাহুল্য।

দেশের অর্থনীতিবিদ থেকে শুরু করে সাধারন মানুষ কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে যথেষ্ট হতাশ হতে বাধ্য । কারন পূর্বেকার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসায় সকলেই আশঙ্কা করছে, এবার দেশের বিভিন্ন সংস্থা বা মালিক পক্ষ যে কোন অজুহাত দেখিয়ে তাদের কর্মী ছাঁটাই এবং বেতন কাটার পথে হাঁটবে এবং সে ক্ষেত্রে তাদের কোন প্রকার জবাবদিহি করতে হবে না ।

ঘটনাচক্রে প্রথম লকডাউন চলা কালীন কেন্দ্রীয় সরকারের বেসরকারি কর্মীদের বেতন এবং কাজের স্থায়িত্ব নিয়ে যে নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছিল, তাতে অনেকেই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছিল । সেই সময়  অবশ্য কয়েকটি সংস্থা কেন্দ্রীয় ওই নির্দেশিকার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানিয়েছিল। সুপ্রিম কোর্ট থেকে কেন্দ্রীয় সরকারকে সেই নির্দেশ পুনবিবেচনা করার কথা বলা হয়েছিল । কিন্তু সেই আবেদন নাকচ হয়ে যায় । এবার কেন্দ্রীয় সরকার নিজেই সেই রাস্তা খুলে দিল ।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...