শত্রুদের দুশ্চিন্তা বাড়াতে হাজির ভারতের ‘অস্ত্র’

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্ক: দিন দিন চিন এবং পাকিস্তানের সাথে ভারতের যে তিক্ততার সম্পর্ক তৈরি হচ্ছে, তাতে করে নিজেদের প্রতিরোধ ব্যবস্থা আরও কড়া করে গড়ে তুলতে হবে ভারতকে। আর এই উদ্দেশ্যেই সম্প্রতি সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে তৈরি মিসাইল ‘অভ্র’ এর পরীক্ষা সম্পন্ন করল ভারতের ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড অর্গানাইজেশন (DRDO)।

ভারতের তিন বাহিনীর মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী ভারতীয় বিমানবাহিনী। বহু অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র এবং প্রতিরোধ ব্যবস্থা রয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে। তাছাড়াও, ভবিষ্যতে আরও অত্যাধুনিক প্রযুক্তি বায়ুসেনার অন্তর্ভুক্ত করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এরই মধ্যে সম্পূর্ণ দেশীয় নকশায় তৈরি ভারতের এই এয়ার-টু-এয়ার ক্ষেপণাস্ত্র শত্রুদের দুশ্চিন্তা আরও বাড়িয়ে দেবে বলে ধারণা করা যাচ্ছে।

সোমবার (১৬ই সেপ্টেম্বর) ভারতের ওড়িশা উপকূলে সুখোই সু-৩০ এমকেআই কমব্যাট বিমান থেকে ‘অস্ত্র’ এর পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। জানা যাচ্ছে যে, নির্দিষ্ট লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম হয়েছে ক্ষেপণাস্ত্রটি।

ভারতের ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড অর্গানাইজেশন (DRDO) তে সম্পূর্ণ দেশীয় পদ্ধতিতে এই মিসাইল’টি তৈরি করা হয়েছে। সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে, এই মিসাইলের পাল্লা ৭০ কিলোমিটার পর্যন্ত। যে কোনও ধরণের আবহাওয়াতেই এই মিসাইল কাজ করতে সক্ষম এবং দৃষ্টিগোচরের বাইরে থাকা লক্ষ্যবস্তুকেও অভ্রান্ত ভাবেই আঘাত করতে পারবে এটি। এপ্রসঙ্গে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রকের তরফে আরও জানানো হয়েছে, স্বল্প বা দীর্ঘ যে কোনও রেঞ্জেই ‘অস্ত্র’ আঘাত হানতে সক্ষম।

বর্তমানে এই ক্ষেপণাস্ত্রের নতুন সংস্করণ নিয়ে চিন্তা-ভাবনা চালাচ্ছে DRDO, যার রেঞ্জ হবে ৩০০ কিলোমিটার।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য