সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব রুখতে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হল হুগলীতে

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের তথ্য আদান প্রদানে সবচেয়ে বড় হাতিয়ার । তেমনি সোশ্যাল মিডিয়ায় কোন গুজব নিমিষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়তে পারে অসংখ্য মানুষের মধ্যে । হুগলী জেলায় তেলিনি পাড়ার সংঘর্ষ নিয়ে কোন প্রকার গুজব বা খবর এলাকার মধ্যে ফের উত্তেজনা যাতে তৈরি করতে না পারে, তার জন্য মোট ১১ টি থানার ইন্টারনেট পরিষেবা আগামী ১৭ই মে পর্যন্ত বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন ।

আগামী ১৭ই মে পর্যন্ত হুগলী জেলার মোট ১১টি থানা এলাকার ইন্টারনেট পরিষেবা সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে হুগলী জেলা প্রশাসন । সেখানে  তেলিনিপাড়া সংঘর্ষের ছবি, ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে হু হু করে পোস্ট হচ্ছে, ছড়াচ্ছে গুজব । গুজব রুখতে, উত্তেজনা প্রশমিত করতে শেষপর্যন্ত হুগলির জেলা প্রশাসন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গেছে ।

আরও পড়ুনঃ 

জানা গেছে আগামী ১৭ ই মে পর্যন্ত শুধু ইন্টারনেট পরিষেবা নয়, বন্ধ থাকবে  কেবল টিভির সংযোগ ও ডিশটিভি পরিষেবা।মঙ্গলবার রাতে চন্দননগরের পুলিশ কমিশনার এবং হুগলির পুলিশ সুপার (গ্রামীণ) যৌথ নির্দেশিকা জারি করে ইন্টারনেট বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। ভোডাফোন, জিও, বিএসএনএল, আইডিয়া, এয়ারটেল, টাটা টেলি সার্ভিস-সহ সমস্ত কেবল টিভির ইন্টারনেট সংযোগও বিচ্ছিন্ন রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সংস্থাগুলিকে। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, কিছু সমাজবিরোধী ইন্টারনেটের মাধ্যমে গুজব ছড়াচ্ছে। তা রুখতেই প্রশাসন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ২০০০ সালের তথ্যপ্রযুক্তি আইন অনুযায়ী এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

যে যে থানা এলাকায় ইন্টারনেট পরিষেবা এবং কেবল পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তার একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে । তালিকায় দেখা যাচ্ছে সেই থানাগুলি হল- উত্তরপাড়া, রিষড়া, শ্রীরামপুর, চণ্ডীতলা জাঙ্গিপাড়া, ভদ্রেশ্বর, চন্দননগর, সিঙ্গুর, হরিপাল এবং তারকেশ্বর।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...