বাঙালীদের জন্য বিশাল খবর, জানতে হলে পড়ুন বিস্তারিত

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃবাঙালীরা সব জায়গায়তেই যে শ্রেষ্ঠ তা তারা সেই প্রাচীনকাল থেকেই প্রমাণ করে এসেছে। তা সে দেশে হোক কিংবা বিদেশে। এবার আবারও সেটা প্রমাণ হয়ে গেলো। লন্ডনে বাংলা ভাষা পেলো দ্বিতীয় ভাষার স্থান। এটা বাঙালীদের কাছে সত্যিই একটা গর্বের বিষয়।

london

প্রাচীনকাল থেকেই বিশ্বের দরবারে বাঙালীরা যেন দাপটের সাথে তাঁদের অস্তিত্ব জানান দিয়ে এসেছে। সে স্বামী বিবেকানন্দের শিকাগো বক্তৃতা হোক কিংবা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাহিত্য। জগদীশ চন্দ্র বোসের নোবেল হোক কিংবা অমর্ত্য সেনের এমনকি অভিজিৎ ব্যানার্জির নোবেল। এবং হোক সত্যজিৎ রায়ের অস্কার। সাহিত্য থেকে সিনেমা, মহাকাশ থেকে বিজ্ঞান সবক্ষেত্রেই বাঙালীরা যেন গর্বের সাথে এগিয়ে চলেছেন। এবার সেই মুকুটে আরও একটি পালক যোগ হল সেটা হল লন্ডনে বাংলা ভাষা এবার অর্জন করল ২য় স্থান। প্রথমটা অবশ্যই তাদের মাতৃভাষা ইংরেজি। বাঙালীরা সারা বিশ্বে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। শুধুমাত্র লন্ডনেই প্রায় ৭২ হাজার বাঙালী বাংলায় কথা বলেন। সমীক্ষায় জানা গেছে যেটা হল ইংরেজির পরেই। আরও জানা গেছে যে আর যে দুটি ভাষার স্থান বাংলার পর সে দুটি হল পোলিশ এবং তুর্কি। এছাড়া সুত্র মারফৎ জানা গেছে যে লন্ডনে বসবাসকারী প্রায় ২ লক্ষ বাসিন্দা এই তিনটি ভাষায় কথা বলেন।

ভারতের মত লন্ডনেও বিভিন্ন ভাষাভাষীর মানুষ বাস করেন। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশী বাস করে বাংলাদেশী বাঙালী এবং ভারতীয় বাঙালী। লন্ডনের একটি সংস্থা সেখানকার অধিবাসীদের সাংস্কৃতিক বৈচিত্র এবং বাসিন্দাদের মধ্যে যোগাযোগ বাড়াতে একটি সমীক্ষা করেন। আর সেই সমীক্ষা থেকে জানা যায় লন্ডনে বসবাসকারী প্রায় ৩ লক্ষ বাসিন্দাদের মধ্যে প্রতিটি বাড়িতেই কোনোনা কোনও বিদেশী ভাষার চল আছে এবং সবচেয়ে বেশী বাংলা ভাষার চল আছে। তবে এও জানা যাচ্ছে যে বাংলা ভাষাভাষীদের সংখ্যা বাড়লেও খুব কম সংখ্যক ব্রিটিশরাই বাংলা ভাষায় স্বচ্ছন্দে কথা বলতে পারেন। যেটা একটু হলেও অবাক করা বিষয়।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...