গ্রাহকদের অতিরিক্ত ছাড় দিতে গিয়ে ফ্লিপকার্ট ও অ্যামাজন চরম বিপদের মুখে পড়তে চলেছে

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ ফ্লিপকার্ট ও অ্যামাজন-এই দুই ই-কমার্স কোম্পানি তার গ্রাহকদের অতিরিক্ত ছাড় দিতে গিয়ে সমস্যার মুখে পড়তে চলেছে । CAT (কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডস)  জানায়,  ফ্লিপকার্ট ও আমাজন এ ‘ফেস্টিভ সিজন সেল’ চালু হয়েছে যা সরকারের এফডিআই পলিসিকে মান্যতা দিচ্ছে না ।

ভারতের বাজার বলতে গেলে সারা পৃথিবীর মধ্যে অন্যতম । কিছু দিন আগেও মানুষ সরাসরি দোকানে গিয়ে জিনিস পত্র কিনতে পছন্দ করতেন । কিন্তু বর্তমানে ভারতে অনলাইন শপিং খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে । ছোট খাট কেনাকাঁটার জন্যেও ক্রেতারা অনলাইনে সার্চ করছে এবং যেখানে বেশী সস্তা এবং অফার থাকছে সেখান থেকে ক্রয় করছে ।বাজার চলতি এই অনলাইন শপিং অ্যাপগুলির মধ্যে অন্যতম হল ফ্লিপকার্ট এবং আমাজন । এই দুটি কোম্পানি বিভিন্ন সময়ে দারুণ দারুণ অফারের মাধ্যমে তার গ্রাহকদের খুশি করে এসেছে। তবে সম্প্রতি এই দুটি কোম্পানির বিরুদ্ধে উঠে এসেছে অভিযোগ।

অনলাইন ই-কমার্স কোম্পানি গুলির জন্য সাধারন খুচরো দোকান গুলি ব্যাবসায়ে মার খাচ্ছে ভীষণ ভাবে ।  সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকার আমাজন ও ফ্লিপকার্ট এই দুটি ই-কমার্স কোম্পানির কাছ থেকে তাদের কিছু বিবরণ চায় । সরকার এদের কাছে তাদের ৫ জন সবচেয়ে ভালো বিক্রেতা এবং এই বিক্রেতাদের ৫ টি পছন্দের জিনিসের  বিবরণ চেয়ে পাঠায়। এছাড়া কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডস (CAT) এর পক্ষ কিছু প্রশ্নাবলী জিজ্ঞাসা করা হয়।

CAT জানায় যে ফ্লিপকার্ট ও আমাজন এ ‘ফেস্টিভ সিজন সেল’ চালু হয়েছে । এই ফেস্টিভ সিজন সেল’  সরকারের এফডিআই (FDI) পলিসির নিয়মের বাইরে পড়ছে । এছাড়া অভিযোগ উঠে যে, এই কোম্পানী গুলি যে অফারগুলো দিচ্ছে,  তাতে বাজারের পণ্য গুলির সাথে পার্থক্য থাকছে বিস্তর । ফলে বাজার থেকে না কিনে ক্রেতারা অনলাইনে কিনছে ।  সম্প্রতি বানিজ্য মন্ত্রক পীয়ূস গয়াল বলেন যে ফ্লিপকার্ট ও আমাজন এর নামে বাজার মন্দা করার মামলার তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে আমাজন ও ফ্লিপকার্ট থেকে এখনও পর্যন্ত এই ই-মেল এর কোনো উত্তর পাওয়া যায় নি।

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য