করোনার আতঙ্কের মধ্যেও দুঃস্থ-আর্ত মানুষের পাশে দাঁড়াল বারাসাত কিংস্টোন এডুকেশন্যাল ট্রাস্ট

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ বিশ্বজুড়ে মহামারীর আকার ধারন করেছে করোনা সংক্রমণ। সেই করোনা আতঙ্কে গোটা দেশে চালু হয়েছে ২১ দিনের লকডাউন । সাধারন ‘দিন আনা দিন খাওয়া’ মানুষের পড়তে হয়েছে সমস্যায় । টানা ২১ দিনের লকডাউনের ফলে সেই সব দুঃস্থ মানুষ আজ কর্মহীন গৃহবন্দী হয়ে  প্রায় উপোষ করে আছেন । সেই সমস্ত আর্ত মানুষের সেবায় এবার এগিয়ে এল বারাসাত কিংস্টোন এডুকেশন্যাল ট্রাস্ট । উত্তর চব্বিশ পরগনায় নববারাকপুরের শতাধিক দুঃস্থ, আর্ত মানুষের জন্য ব্যবস্থা করল, চাল, ডাল, তেল, বিস্কুটের পাশাপাশি দরকারি ঔষধ ।

নিজের এলাকায় সেই সব দুঃস্থ মানুষের কথা ভেবে ঘরে চুপ করে বসে থাকতে পারেনি নববারাকপুরের কিছু তরুণ । স্থানীয় তরুণ রাজা দত্তের নেতৃত্বে মাত্র ২৪ ঘণ্টায় একটি ছোট আলোচনার মাধ্যমে তারা ঠিক করে এলাকার দুঃস্থ, না খেতে পাওয়া মানুষদের পাশে দাঁড়াবে । সাহায্যের আবেদন জানায় বারাসাত কিংস্টোন এডুকেশন্যাল ট্রাস্টের সেক্রেটারি উমা ভট্টাচার্য-এর কাছে । তিনি ফেরাননি । তার মাধ্যমেই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় বারাসাত কিংস্টোন এডুকেশন্যাল ট্রাস্ট  । তারা নববারাকপুরের শতাধিক দুঃস্থ মানুষের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় রসদ – চাল, ডাল, আলু, তেল, সাবান প্রভৃতি ব্যবস্থা করে । আর স্থানীয় সেই দামাল ছেলেগুলি করোনার আতঙ্ককে দু’হাতে দূরে ঠেলে গত দু দিনেই তাঁদের নিজেদের ছোট গণ্ডির মধ্যে থেকে শতাধিক মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন বারাসাত কিংস্টোন এডুকেশন্যাল ট্রাস্টের কাছ থেকে পাওয়া  মুখের খাবার, ঔষধ, বেঁচে থাকার নুন্যতম রসদ ।

স্থানীয় এলাকার মধ্যেও অনেক পরিবার থাকে যেখানে প্রশাসন ঠিক মত পৌছাতে পারে না সব সময় । এই দামাল ছেলেগুলি   প্রাথমিকভাবে বয়স্ক এবং দুঃস্থ মানুষদের একটি তালিকা তৈরি করে এবং বারাসাত কিংস্টোন এডুকেশন্যাল ট্রাস্টের সাহায্যে সেই সমস্ত বিপদে পড়া মানুষের হাতে পৌঁছে দেয় বেঁচে থাকার রসদ । মানুষের বিপদে বারাসাত কিংস্টোন এডুকেশন্যাল ট্রাস্টের মত আরও সংস্থা আগামী দিনে এভাবে এগিয়ে আসাটাই কাম্য ।

 

আপনি এটাও পছন্দ করতে পারেন
মন্তব্য
Loading...