সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলা ; রায় ৩০ শে সেপ্টেম্বর, হাজিরার নির্দেশ আদবানিসহ সকলকে

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণের কাজ করোনার আবহের মধ্যেই শুরু হয়েছে আদালতের নির্দেশ মেনে । কিন্তু ২৭ বছর আগে ১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ঘটনার রায় বের হবে চলতি মাসের ৩০ তারিখ । ইতিমধ্যে এই ধ্বংসের ঘটনায় আদবানিসহ সমস্ত অভিযুক্তদের রায়দানের দিন আদালতে হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হল ।

১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর অযোধ্যায় বাবরি মসজিদ ধ্বংস করা হয় । ঘটনায় নাম জড়িয়ে যায় প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লালকৃষ্ণ আডবাণী, মুরলী মনোহর জোসি, উমা ভারতী, প্রাক্তন রাজ্যপাল ও উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কল্যাণ সিং, বিজেপি নেতা বিনয় কাটিয়ার সহ একাধিক রাজনৈতিক ব্যাক্তির । ২৭ বছর পর সেই মামলার রায় ঘোষণা হতে চলেছে ৩০ শে সেপ্টেম্বর । আদালত থেকে এই মামলায় সমস্ত অভিযুক্তদের রায় দানের সময় হাজির থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ।

মঙ্গলবার সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে শেষ হয় এই মামলার শুনানি। বিশেষ সিবিআই আদালতকে ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের রায় দিতে আগেই নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট । বাবরি মসজিত ধ্বংসের তদন্তে নেমে উঠে আসে একের পর এক নাম । সিবিআই ৩২ জনকে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের দায়ে অভিযুক্ত করে । ২৭ বছরে যাদের মধ্যে অনেকেই মারা গেছেন ।

উল্লেখ্য, বাবরি মসজিদ ধ্বংসের ঘটনায় লাল কৃষ্ণ আদবানি প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন নি । সব মিলিয়ে এই ঘটনায় মোট ৪৯টি এফআইআর হয়েছিল। প্রথমে ফৈজাবাদে একটি এফআইআর দায়ের করেন এসও প্রিয়বন্দ নাথ শুক্লা এবং অন্য আরও একটি অভিযোগ দায়ের করেন গঙ্গা প্রসাদ তিওয়ারি। বাকি ৪৭টি এফআইআর-ও পরে বিভিন্ন তারিখে দায়ের করা হয়েছিল। ১৯৯৩ সালের ৫ অক্টোবর সিবিআই তদন্ত শেষে মামলার মোট ৩২ জন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করে। এর মধ্যে ১৭ জন বিচার চলাকালীনই মারা গিয়েছেন।

মন্তব্য
Loading...