সময়ের সাথে হাত মিলিয়ে

Advertisement

অশোকনগরে ধুন্ধুমার, গোষ্ঠী সংঘর্ষের মাঝে আহত ৪ পুলিশ, নিয়ন্ত্রনে নামল RAF

0

বং দুনিয়া ওয়েব ডেস্কঃ শনিবার গভীর রাত থেকেই উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে দুই গোষ্ঠী সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কাণ্ড । সামাল দিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে সংঘর্ষকারীদের রোষের মুখে পড়ে আহত ৪ পুলিশ কর্মী । সকাল হতেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নামান হল র‍্যাপিড অ্যাকশান ফোর্স (RAF) । এলাকায় এখন থমথমে ভাব বিরাজ করছে ।

জানা গেছে, অশোকনগর থানা এলাকায় ভুরকুন্ডা গ্রাম পঞ্চায়েতের দোগাছিয়া এলাকায় দুই দলের গোষ্ঠী সংঘর্ষ শুরু হয় । সেখানে রাতেই ডিএসপি রোহেদ শেখ নেতৃত্বে পুলিস বাহিনী ঘটনাস্থলে যায় । একদল দুষ্কৃতীর হাতে আক্রান্ত হন চার পুলিশকর্মী। আহতরা হলেন এএসআই মিনাল মণ্ডল, কনস্টেবল উজ্জ্বল বিশ্বাস, অমল বন্দ্যোপাধ্যায় ও পুলিস গাড়িরচালক কাবিল মন্ডল। পুলিশ  ১০ দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করে। আহতদের মধ্যে কনস্টেবল অমল আচার্যের আঘাত গুরুতর। কপালে ৫ টি সেলাই নিয়ে তিনি অশোকনগর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি।

স্থানীয় সুত্র থেকে জানা গেছে,  ভুরকুন্ডা গ্রাম পঞ্চায়েতের দোগাছিয়ার পঞ্চায়েত সদস্য শাজাহান মল্লিকের অনুগামীরা পুলিসের উপরে হামলা চালায়। দীর্ঘদিন ধরেই স্থানীয় সিরাজুল হক আটার সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধ শাজাহান মল্লিকের। এর আগেও একবার আটা পরিবারে বোমা ছোড়ার অভিযোগ ওঠে সিরাজুলের বিরুদ্ধে। গতকাল ওই দুই পক্ষের মধ্যে রাস্তায় ইট রাখা নিয়ে একটি বচসা ও মারপিট ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১১ টা নাগাদ দোগাছিয়া যায় পুলিস। ঘটনাস্থলে পৌঁছতেই পুলিসের ওপর ইট, বাঁশ নিয়ে চলে হামলা। পুলিস জিপেও ভাঙচুর চলে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে  হাবড়া অশোকনগর, দত্তপুকুর থানার পুলিস বাহিনী এবং RAF ঘটনাস্থলে নামে।বাড়ি বাড়ি অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত  ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে । এখনও এলাকায় RAF টহল দিচ্ছে । একে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে হাবড়া, অশোকনগর এলাকায় চলছে কড়া লকডাউন । এর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে ।

মন্তব্য
Loading...