সংগৃহীত ছবি

প্রতি বছরের মতো এ বছরও ফেব্রুয়ারির প্রথম দিন থেকে শুরু হতে যাচ্ছে দেশের সবচেয়ে বড় বইমেলা, ঐতিহাসিক ‘অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২৪’। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি এই বইমেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

অমর একুশে গ্রন্থমেলা কমিটির সদস্য সচিব ড. কে এম মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১ ফেব্রুয়ারি বিকেল ৩টায় বাংলা একাডেমি কমপ্লেক্স ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত মেলার উদ্বোধন করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। এ বছর মেলার পুরো কাজ একাডেমি করছে। আগের বছরগুলোতে কিছু ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি মেলার আয়োজনে জড়িত ছিল, যা গত বছর কিছুটা সমালোচনার মুখে পড়েছিল।

মেলায় ৫৭৩টি প্রতিষ্ঠানকে ৮৯৫টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৭৮৬টি সাধারণ স্টল এবং ১০৯টি স্টল লিটল ম্যাগাজিন স্কয়ারে দেওয়া হবে বলে জানান ড. মুজাহিদুল ছাড়াও এ বছর মোট ৩৭টি প্যাভিলিয়ন বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। গত বছর ৬০১টি প্রতিষ্ঠানের অনুকূলে ৯০১টি স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়।

এ বছর মেলার পুরো কাজ একাডেমি করেছে বাংলা একাডেমি। মুজাহিদুল আরও বলেন, বিগত বছরগুলোতে মেলা আয়োজনে কিছু ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি জড়িত ছিল, যা গত বছর কিছুটা সমালোচনার মুখে পড়েছিল।

তিনি বলেন, মেলা শেষ হওয়ার পরপরই পরবর্তী মেলা শুরুর প্রস্তুতি এবং প্রস্তুতি মঞ্চ, উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও মাসব্যাপী মেলার জন্য তিন ধাপে পৃথক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও মাসব্যাপী সেমিনারের পাশাপাশি শিশু-কিশোরদের জন্য চিত্রাঙ্কন, সংগীত ও কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হবে।

আয়োজকরা জানান, 23 জানুয়ারি ডিজিটাল লটারি পদ্ধতির মাধ্যমে পুরনো ও নতুন তালিকাভুক্ত প্রকাশনার স্টল বরাদ্দ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে তালিকাভুক্ত 601টি সংস্থা ছাড়াও, প্রায় 70টি নতুন প্রকাশনা বিজ্ঞপ্তিতে সাড়া দিয়েছে এবং স্টল বরাদ্দের জন্য আবেদন করেছে। এর মধ্যে 23টি নতুন প্রকাশনা মেলায় অংশগ্রহণের জন্য নির্বাচিত হয়েছে।

ডাঃ. মুজাহিদুল বলেন, গত বছরের মতো এবারও মেলার মূল মঞ্চ হবে বাংলা একাডেমি ক্যাম্পাসে এবং বইয়ের মোড়ক উন্মোচন মঞ্চ ও লেখকের বক্তৃতা মঞ্চ তৈরি করা হবে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান প্রাঙ্গণে। রমন কালী মন্দিরের পাশে সাধুসঙ্গ এলাকায় একটি ‘শিশু চত্বর’ স্থাপন করা হবে।

এ বছর বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার-২০২৩ বাংলা সাহিত্যের বিভিন্ন ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য ১১টি বিভাগে ১৬ জনকে দেওয়া হবে: কবিতা, কথাসাহিত্য, প্রবন্ধ/গবেষণা, অনুবাদ, নাটক, শিশুসাহিত্য বিভাগ, মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু পরিবেশ। / বিজ্ঞান ক্ষেত্র, জীবনী এবং লোককাহিনী ইত্যাদি।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া অমর একুশে গ্রন্থমেলা-২০২৪-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পুরস্কার তুলে দেবেন।

এদিকে, বর্তমান পরিস্থিতি এবং বইমেলা এলাকায় মেট্রোরেল পরিচালনায় সৃষ্ট চ্যালেঞ্জের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ বিগত বছরের মতো এবারও মেলার পূর্ণ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর ডিএমপি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছে, বইমেলার মুখোমুখি প্রধান চ্যালেঞ্জগুলোর মধ্যে রয়েছে বিদ্রোহ, অগ্নিসংযোগ এবং ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা।

ডিএমপি জানায়, দুর্বৃত্তরা মেট্রোরেলে নাশকতার চেষ্টা করায় মেট্রোরেল সার্ভিস নতুন চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখা দিয়েছে।

তবে বইমেলা মাঠের ভেতরে ও বাইরে ডিএমপির ইউনিফর্ম ও সাদা পোশাকে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন থাকবে এবং মেলার চারপাশের সবকিছুর ওপর নজর রাখতে ওয়াচ টাওয়ার ও ফায়ার টেন্ডার বসানো হবে।

এছাড়া সিসিটিভি ক্যামেরা ও ড্রোনের মাধ্যমে মেলার আশপাশে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা হবে বলে জানান ডিএমপি কমিশনার। ডিএমপি টিম পুরো এলাকা তদন্ত করবে এবং গুজব ঠেকাতে সোশ্যাল মিডিয়া মনিটরিং করা হবে।

Nitya Sundar Jana is one of the Co-Founder and Writer at BongDunia. He has worked with mainstream media for the last 5 years. He has a degree of B.A from the West Bengal State University.

Leave A Reply